Home / আন্তর্জাতিক / আমরা আলো, ইরান অন্ধকার: সৌদি আরব

আমরা আলো, ইরান অন্ধকার: সৌদি আরব

নিউজ ডেস্ক :: শনিবার (২৭ অক্টোবর ) সৌদি আরব ও বাহারাইন বলেছে, উপসাগরীয় অঞ্চলের দেশগুলোই ইরানের প্রভাব বিস্তার ঠেকিয়ে আঞ্চলিক স্থিতিশীলতা নিশ্চিতে ভূমিকা রাখছে। সৌদি আরবের ভাষ্য, মধ্যপ্রাচ্যে যে দুইটি শক্তি কাজ করছে তার একটি আলোকিত আর অপরটি অন্ধকারাচ্ছন্ন। সৌদি আরবই সেই আলোকিত শক্তি। পক্ষান্তরে অন্ধকারাচ্ছন্ন শক্তিটি হচ্ছে ইরান। বার্তা সংস্থা রয়টার্স উল্লেখ করেছে, মধ্যপ্রাচ্যে ইরানবিরোধী মার্কিন তৎপরতার ঘনিষ্ঠ অংশীদার সৌদি আরব। সাংবাদিক খাশোগিকে হত্যার ঘটনায় নিন্দার ঝড় উঠলেও দুই দেশের সম্পর্ক এখনও অটুট।

 

সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দেল আল জুবায়ের

 

মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী জিম ম্যাটিস শনিবার মন্তব্য করেছেন, খাশোগির হত্যায় মধ্যপ্রাচ্যের স্থিতিশীলতা ক্ষুণ্ন হয়েছে। হত্যার দায়ে ২১ সৌদি নাগরিকের বিরুদ্ধে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারির পাশাপাশি অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে অন্যান্য শাস্তিমূলক ব্যবস্থাও নেওয়া কথা জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। মানামায় অনুষ্ঠিত বার্ষিক নিরাপত্তা সম্মেলনে ম্যাটিস সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘কোনও দেশ যদি আন্তর্জাতিক রীতি ভঙ্গ এবং আইনের শাসনকে উপেক্ষা করে চলে তাহলে তা আঞ্চলিক স্থিতিশীলতার জন্য খারাপ পরিণতি ডেকে আনে।’

 

অবশ্য যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সৌদি আরবের সম্পর্কের কথা উল্লেখ করে বাহারাইনে অনুষ্ঠিত নিরাপত্তা সম্মেলনে সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দেল আল জুবায়ের বলেছেন, এ সম্পর্ক এক অটুট বন্ধন। ‘যুক্তিযুক্ত ও বাস্তবসম্মত’ পররাষ্ট্র নীতি মেনে চলায় তিনি ট্রাম্প প্রশাসনের প্রশংসা করেন। তার ভাষ্য, ‘মধ্যপ্রাচ্যে আমরা দুইটি পক্ষের তৎপরতা দেখতে পারছি। একটি হচ্ছে আলোর পক্ষ, অন্যটি অন্ধকারের। আমারাই আলোর পক্ষ। ইতিহাস সাক্ষী, আলো সবসময় অন্ধকারের বিরুদ্ধে জয়লাভ করে। এখন প্রশ্নটা হচ্ছে, আমরা তাদের পরাজিত করব কী করে?’

 

সুন্নি মুসলমান অধ্যুষিত সৌদি আরব এবং শিয়া মুসলমান অধ্যুষিত ইরান দীর্ঘদিন ধরে পরোক্ষ যুদ্ধে জড়িয়ে রয়েছে। দুই দেশই ইরাক, সিরিয়া, লেবানন ও ইয়েমেনে নিজেদের প্রভাব বিস্তার করতে চায়। অন্যদিকে ২০১৫ সালে ইরানের সঙ্গে আন্তর্জাতিক পক্ষের স্বাক্ষর করা পারমাণবিক অস্ত্রবিরোধী চুক্তিটি থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে প্রত্যাহার করে নেন ট্রাম্প। দেশটির ওপর জারি হয়েছে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *