Home / জাতীয় / উন্নত বাংলাদেশ চান নাকি পিছিয়ে যাবেন সেই সিদ্ধান্ত ভোটারদের: জয়

উন্নত বাংলাদেশ চান নাকি পিছিয়ে যাবেন সেই সিদ্ধান্ত ভোটারদের: জয়

কিষাণের দেশ ::  প্রধানমন্ত্রীর ছেলে ও তার তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় বলেছেন, ‘২০৪১ সালে বাংলাদেশ উন্নত দেশে পরিণত হবে। একটি মানুষও পিছিয়ে থাকবে না। বিশ্বে মাথা উঁচু করে ঘুরে বেড়াবে। এটি আমাদের স্বপ্ন। দেশ ও দেশের মানুষের প্রতি এটা আমাদের ওয়াদা। এজন্য নৌকায় ভোট দিতে হবে। এ কথা অন্য সময়ের চেয়ে এখন বেশি গুরুত্বপূর্ণ। কারণ সামনে নির্বাচন।’

 

রবিবার (২৮ অক্টোবর) বিকালে সাভারের শেখ হাসিনা জাতীয় যুব উন্নয়ন ইনস্টিটিউটে ‘জয় বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড’ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন (সিআরআই) তৃতীয় বারের মতো এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

 

সজীব ওয়াজেদ জয় বলেন, ‘২০২১ সালের আগেই ভিশন-২০২১ বাস্তবায়ন করে আমরা বিশ্বকে দেখিয়ে দিয়েছি। বাংলাদেশ এখন ডিজিটাল এক্সপার্ট, উন্নয়নের উদাহরণ। ১০ বছর আগে যখন ডিজিটাল বাংলাদেশ যাত্রায় পা দেই তখন অনেকে ঠাট্টা করতো। আমরা বিশ্ব ব্যাংকের কনসালট্যান্ট এনে ডিজিটাল হইনি। আমরা নিজেদের মেধা ও উদ্যোগে ডিজিটাল হয়েছি। এখন ফিলিপাইন, পেরু, মালদ্বীপ, ভুটান ও সোমালিয়াকে ডিজিটাল হতে সহযোগিতা করছি।’

 

অ্যাওয়ার্ড জয়ীদের সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘তরুণদের নিজেদের উদ্যোগে দেশের মানুষ, নারী, শিশু, প্রতিবন্ধীদের জন্য কিছু করার যে আত্মবিশ্বাস তা দশ বছর আগে বাংলাদেশে ছিল না। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে তরুণদের সহযোগিতা করে যাবে।’জয় বলেন, ‘বিএনপি আমলে দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন হিসেবে বাংলাদেশ পরিচিতি পায়। পরিণত হয় জঙ্গি দেশে। এক পর্যায়ে সামরিক শাসনও চলে আসে। ২০০৮ সালে দেশের মানুষ নৌকায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় আনে। বাংলাদেশ এখন মধ্যম আয়ের দেশ। বিশ্ব থেকে একের পর এক সম্মাননা পাচ্ছি, পুরস্কার পাচ্ছি উন্নয়নের জন্য। শুধুমাত্র স্বাধীনতার দল ক্ষমতায় আসার জন্য এট সম্ভব হয়েছে। নামের আগে জাতীয়তাবাদী লাগালেই জাতীয়তাবাদ হয় না। কাজ করে দেখাতে হয়। আওয়ামী লীগ কাজ দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে।’

 

সজীব ওয়াজেদ জয় আরও বলেন, ‘মধ্যম আয়ের দেশ দিয়ে স্বপ্নের আরম্ভ। আমরা একটি সম্পূর্ণ ডিজিটাল উন্নত দেশের স্বপ্ন দেখি যেখানে প্রতিটি মানুষ ধনী। আগামী নির্বাচনে ভোটারদের কাছে দুটি বিষয় থাকবে। তারা দেশকে উন্নত রাষ্ট্র হিসেবে দেখতে চায়, নাকি অতীতে ফিরিয়ে নিতে চায়? আমার বিশ্বাস, আপনাদের পছন্দ স্পষ্ট। আমরা জানি, অবশ্যই মানুষ উন্নয়ন চায়। যতদিন মানুষ নৌকায় ভোট দেবে, ততদিন বাংলাদেশ এগিয়ে যেতে থাকবে। দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হলে নৌকায় ভোট প্রয়োজন ।’

 

তরুণদের অনুপ্রাণিত করতে ব্যক্তিগত ও প্রাতিষ্ঠানিক পর্যায়ে বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ অনুষ্ঠানে ৩০জন সংগঠকের হাতে অ্যাওয়ার্ড তুলে দেন সজীব ওয়াজেদ জয়। অ্যাওয়ার্ডের জন্য সারাদেশ থেকে আড়াই হাজারের বেশি আবেদন জমা পড়ে। যাচাই-বাছাই শেষে টিকে থাকে ৫০টি সংগঠন। ৩০টি সংগঠনকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়।

 

অনুষ্ঠানে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তফা জব্বার, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম;  বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু,তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম, ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক, বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র এবং সিআরআই ট্রাস্টি রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক ববি  প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *