Home / ফিচারড নিউজ / কিষাণের দেশ -এ প্রতিবেদন প্রকাশিত হওয়ার পর- গৌরীপুর হর্টিকালচার সেন্টারের উদ্যানতত্ত্ববিদ রকিব রানাকে বদলি!! জনমনে স্বস্তি

কিষাণের দেশ -এ প্রতিবেদন প্রকাশিত হওয়ার পর- গৌরীপুর হর্টিকালচার সেন্টারের উদ্যানতত্ত্ববিদ রকিব রানাকে বদলি!! জনমনে স্বস্তি

ম্যানেজিং এডিটর : অবশেষে দৈনিক কিষাণের দেশ পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পর গৌরীপুর হর্টিকালচার সেন্টারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উদ্যানতত্ত্ববিদ রকিব আল রানাকে কুড়িগ্রাম জেলায় বদলী করা হয়েছে। আর এই বদলীর খবরে ক্রেতা-সাধারণ ও সেবা প্রত্যাশীরা স্বস্তি বোধ করছে।

জনা যায়, ২০১৬ সালের শুরুর দিকে এই হর্টিকালচার সেন্টারে যোগদান করে উদ্যানতত্ত্ববিদ রকিব আল রানাসহ অন্যান্য নতুন কর্মকর্তারা। যোগদানের পর থেকেই উঠেন রাতের আধারে কিংবা দিনের বেলা সুযোগ বুঝে অবৈধভাবে চারা বিক্রি এবং তালিকাবিহীন শ্রমিক দ্বারা কাজ করানো, এ নিয়ে একজন সচেতন নাগরিক তথ্য অধিকার আইনে আবেদন করেও কোন সাড়া মেলেনি। সরকারের লক্ষ লক্ষ টাকার রাজস্ব ফাকি দিয়ে ইতোমধেই কামিয়ে নেন কয়েক লাখ টাকা। আর কেউ যেন এ বিষয়ে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলতে না পারে সেজন্য অফিসে স্থাপন করেন সিসি ক্যামেরা। কিন্তু অফিসের এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, রাতের বেলা রকিব রানা সিসি ক্যামেরা অফ করে, দলবল নিয়ে সরিয়ে নেন লাখ লাখ টাকার চারা কলম গাছ। রকিব রানা এখানেই থেমে থাকেননি, বার্ষিক থোক বরাদ্দকৃত ২০-২৫ লাখ টাকা পুরোটাই ভুয়া কাগজ দেখিয়ে নিজের পকেটে তোলে নেন।

তার এই সমস্ত অপকর্ম চলছিল উপর মহলের আশির্বাদে দীর্ঘদিন যাবত। যা নিয়ে গত জানুয়ারি, ফেব্রুয়ারি এবং সর্বশেষ গত জুনে দৈনিক কিষাণের দেশ – সহ বিভিন্ন দৈনিক এ প্রতিবেদন ছাপা হয়,  আর এতে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর,ময়মনিসংহের ডিডি আব্দুল মাজেদ রকিব এর পক্ষ নেন। কিন্তু তাতেও কোন কাজ হয়নি, অবশেষে পানিশমেন্ট বদলি করা হয় কুড়িগ্রাম জেলায়। আর এ খবরে ময়মনসিংহের আম-জনতা কিষাণের দেশ পত্রিকাকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন। দুর্নীতিবিরোধী এমন প্রতিবেদন অব্যাহত রাখারও দাবি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *