Home / Uncategorized / অন্যান্য খবর / ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি থাকবে আরও কয়েক দিন

ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি থাকবে আরও কয়েক দিন

কিষাণের দেশ ডেস্ক :: ঘূর্ণিঝড় ‘তিতলি’ এখন ভারতের ওডিশা ও অন্ধ্র উপকূলে অবস্থান করছে। এর প্রভাবে সাগর উত্তাল ও বাতাসের গতিবেগ বেশি থাকায় দেশের অধিকাংশ অঞ্চলে ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি হচ্ছে। আগামী ১৪ অক্টোবর নাগাদ এ পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে পারে। এদিকে, ঘূর্ণিঝড়টি ওডিশা ও অন্ধ্র উপকূল থেকে আরও উত্তর-উত্তর-পশ্চিম দিকে সরে গিয়ে দুর্বল হতে পারে।

 

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ভারতের ওডিশা রাজ্যের গোপালপুর দিয়ে স্থলভাগে উঠতে শুরু করে বঙ্গোপসাগর থেকে ধেয়ে আসা তিতলি।

 

এদিকে, ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে সাগর উত্তাল থাকায় ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কায় দেশের চার সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত ও নদী বন্দরে ১ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলেছে আবহাওয়া অধিদফতর। পাশাপাশি সাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে বলা হয়েছে।

 

আবহাওয়াবিদ আরিফ রহমান জানান, ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে সাগর এলাকায় বায়ুচাপের তারতম্য হচ্ছে। উপকূলীয় এলাকায় গভীর সঞ্চারণশীল মেঘমালার সৃষ্টি হয়েছে। এই কারণে আগামী দুই-তিন দিন দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি হতে পারে। কোথাও হালকা, আবার কোথাও ভারী বৃষ্টি হতে পারে বলেও তিনি জানান।

 

তিনি বলেন, ‘যেহেতু ঝড়টি স্থলভাগে উঠে এসেছে, সেহেতু এটি দুর্বল হয়ে পড়বে। দুর্বল অবস্থায় বাংলাদেশের দিকে স্থল নিম্নচাপ হিসেবে আসতে পারে। সেক্ষেত্রে বৃষ্টি আরও কয়েকদিন বেশি হতে পারে।’

 

এদিকে, তিতলির প্রভাবে মঙ্গলবার রাত থেকেই বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে ঝড়ো-বৃষ্টি ও বাতাস বইতে শুরু করে। রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানেও গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি থেকে ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি হচ্ছে। কমে গেছে তাপমাত্রাও।

 

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে খুলনা, বরিশাল, ঢাকা, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গা, রংপুর বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ী দমকা বা ঝড়ো হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

 

আজ দেশে সর্বোচ্চ বৃষ্টি হয়েছে টেকনাফে, ৯৯ মিলিমিটার। এ ছাড়া, চট্টগ্রামে ৪৫, সন্দ্বীপে ৬৩, সীতাকুণ্ডে ৪৯, রাঙ্গামাটিতে ২৩, কুমিল্লায় ১৪, ফেনীতে ৩৭, মাইজদীকোর্টে ৪৩, কক্সবাজারে ৭০, হাতিয়ায় ৭০, সিলেটে ১২, রাজশাহীতে ৬০, ঈশ্বরদীতে ৫৩, বগুড়ায় ৫৮, খুলনায় ১৪, মংলায় ২৪, সাতক্ষীরায় ৪০, যশোরে ২৭,  বরিশালে ৫৪, পটুয়াখালীতে ৭৮, ভোলায় ৬১ মিলিমিটার বৃষ্টি রের্কড করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *