Home / ফিচারড নিউজ / ময়মনসিংহ রেঞ্জে শ্রেষ্ট পুলিশ সুপার নির্বাচিত হয়েছেন শাহ আবিদ হোসেন

ময়মনসিংহ রেঞ্জে শ্রেষ্ট পুলিশ সুপার নির্বাচিত হয়েছেন শাহ আবিদ হোসেন

স্টাফ রিপোর্টার : আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির উন্নয়ন ও কর্মক্ষেত্রে অসামান্য অবদানের জন্য ময়মনসিংহ রেঞ্জে শ্রেষ্ট পুলিশ সুপার নির্বাচিত হয়েছেন শাহ আবিদ হোসেন।

 

গত সেপ্টেম্বর মাসের সার্বিক কর্মকান্ড পর্যালোচনা করে ময়মনসিংহ রেঞ্জ ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝি রেঞ্জ ডিআইজির সম্মেলন কক্ষে এ পুরষ্কার ঘোষণা করেন। এতে মো. শাহ আবিদ হোসেনকে শ্রেষ্ঠ পুলিশ সুপার, শাহ্ শিবলী সাদিককে শ্রেষ্ঠ সার্কেল সহকারী পুলিশ সুপার, জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ওসি শাহ কামাল আকন্দকে শ্রেষ্ঠ ওসি, ধোবাউড়া থানার মো: শওকত আলমকে শ্রেষ্ঠ ওসি, মো: আব্দুল কাদের খানকে শ্রেষ্ট ওসি (ট্রাফিক) , শ্রেষ্ট চোরচালান ও মাদকদ্রব্য উদ্বারকারী অফিসার হিসেবে জামালপুর ডিবির এসআই মিন্টু চন্দ্র ঘোষ, শ্রেষ্ট ওয়ারেন্ট নিষ্পত্তিকারী অফিসার হিসেবে মুক্তাগাছা থানার এএসআই হামিদুর রহমান ও জামালপুরের এএসআই মুশফিকুর রহমান ও শ্রেষ্ট চৌকিদার হিসেবে সরিষাবাড়ী থানার মো: কাদেরকে নির্বাচিত ঘোষণা করেন ময়মনসিংহ রেঞ্জ ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝি।

 

এসময় ময়মনসিংহ বিভাগের ৪ জেলার পুলিশ সুপারসহ পুলিশ প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। বিশেষ করে শাহ আবিদ হোসেন ময়মনসিংহে যোগদানের পর থেকেই ময়মনসিংহে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির ব্যাপক উন্নয়ন ঘটে। জেলায় চুরি, ছিনতাই, খুন ও মাদক ব্যবসাসহ বিভিন্ন অপরাধ প্রবণতা কমে গেছে অনেক। চলতি দায়িত্বে শাহ আবিদ হোসেনের কড়া নজরদারিতে ট্রাফিক বিভাগের আমূল পরিবর্তন ঘটেছে। এসপি শাহ আবিদ হোসেনের দিক নির্দেশনায় গত একমাসে ট্রাফিক বিভাগে জরিমানা আদায় করা হয়েছে ৪১ লক্ষ ৩১ হাজার ৮৫০ টাকা। যেখানে আগের পুলিশ সুপার এক বছরে ২৪ লক্ষ ৮৪ হাজার ৮৫০ আদায় করতে সক্ষম হন। বর্তমান পুলিশ সুপারের রেকর্ড ইতোপূর্বের কোন পুলিশ সুপারই তাদের দায়িত্ব পালনকালে করতে পারেননি। শুধু ময়মনসিংহেই নয়, বর্তমান পুলিশ সুপার পূর্বে কুমিল্লাতে দায়িত্বপালন কালেও নজিরবিহীন ইতিহাস সৃষ্টি করেন।

 

ইতোপূর্বে তিনি কুমিল্লা জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে নাগরিক সেবা দেয়ায় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছিলেন। তার ওই কৃতিত্ব স্বরূপ ২০১৭ সালে দেশের একমাত্র সেরা পুলিশ সুপার (এসপি) হিসেবে ‘ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড’ পুরস্কারে ভূষিত হন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *